আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ ২০২১ সংক্রান্ত বিস্তারিত

152
আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ
আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ

বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড অধীনে বাংলাদেশের সকল মাদরাসায় ২০২১ সালের আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। আপনি যদি বাংলাদেশের সকল সরকারি বা বেসরকারি আলিয়া মাদরাসার আলিম ফরম ফিলাপ সম্বন্ধে জানতে চান তাহলে সঠিক পেইজে অবস্থান করছেন। নিম্নে ২০২১ সালের আলিম পরীক্ষার ফরম পূরণের নিয়মাবলীসহ বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হলো:

২০২১ সালের আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ এর নির্ধারিত সময়সূচী

১১ আগস্ট মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে (bmeb.ebmeb.gov.bd), সম্ভাব্য পরীক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। অর্থাৎ চলতি সালের আলিম পরীক্ষায় যারা অংশগ্রহণ করতে পারবে, তার একটি তালিকা বোর্ডের ওয়েবসাইটে দেখা যাবে। বোর্ড ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত তালিকা হতে প্রতিষ্ঠান প্রধানেরা পরীক্ষার্থী নির্বাচন করতে পারবে, ১২ আগস্ট থেকে ২৫ আগস্ট ২০২১ খ্রি. তারিখ পর্যন্ত।

সম্ভাব্য তালিকা প্রদর্শন১১/০৮/২০২১
আলিম ফরম ফিলাপ শুরু১২/০৮/২০২১ হতে
আলিম ফরম ফিলাপ শেষ২৫/০৮/২০২১ পর্যন্ত
পরীক্ষার্থী কর্তৃক ফি দেয়ার শেষ সময়৩০/০৮/২০২১ পর্যন্ত
ফরম ফিলাপের লিংকhttp://www.ebmeb.gov.bd/

কিভাবে করা যাবে আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ ২০২১

বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বাের্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী ১২ আগস্ট ২০২১ ইং তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ (eff) পূরণ। উক্ত ফরম পূরণের কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে শিক্ষার্থীদের নিম্নোক্ত নির্দেশনা অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে।

(১) ২০২১ সালের আলিম পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নাম, রােল নম্বর এবং নিজের অথবা অভিভাবকের একটি সচল মােবাইল নম্বর (বাের্ড থেকে মেসেজ প্রাপ্তির জন্য) লিখে শ্রেণি শিক্ষককে আগামী ১২ আগস্ট বা নিজ নিজ কর্তৃক নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পাঠাতে হবে।

(২) শিক্ষার্থীর দেয়া প্রদত্ত মােবাইল নম্বরে বাের্ড থেকে একটি মেসেজ যাবে। উক্ত মেসেজে শিক্ষার্থীর বাের্ড ফি, কেন্দ্র ফি এবং প্রতিষ্ঠানের বকেয়া পাওনাসহ সর্বমােট পরিশােধ যােগ্য টাকার পরিমান উল্লেখ থাকবে।

(৩) শিক্ষার্থী মেসেজে প্রাপ্ত লিংক ব্যবহার করে বা Sonali e-sheba অ্যাপ ব্যবহার করে সর্বমােট টাকা আগামী ৩০ আগস্টের মধ্যে মােবাইল ব্যাংকিং বা Sonali Wallet যে কোন একটির মাধ্যমে পরিশােধ করতে হবে।

(৪) ফি পরিশােধ হলেই কেবল শিক্ষার্থী তার সচল মােবাইল নম্বরে ফরম পূরণ সম্পন্ন হয়েছে মর্মে একটি মেসেজ পাবে।

(৫) ফি পরিশােধ এবং eff পূরণের শেষ সময় আগামী ৩০ আগস্ট ২০২১ ইং

(৬) নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কোন পরীক্ষার্থী জুন ২০২১ পর্যন্ত বকেয়া বেতনসহ বাের্ড ফি পরিশােধ করতে ব্যর্থ হলে তার ফরম পুরন সম্পন্ন হয়নি বলে গণ্য হবে।

(৭) অনিয়মিত এবং ১/২ বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীরা অফিস কিংবা শ্রেণি শিক্ষকের সাথে আগামী ১২ আগস্ট মধ্যে যােগাযোগ করে ফি সংক্রান্ত তথ্য জেনে একই সময়ে ফরম পূরণ করতে হবে।

(৮) ফরম ফিলাপের কাজে কোন শিক্ষার্থী / অভিভাবককে সরাসরি প্রতিষ্ঠানে আসতে হবে না এবং উল্লেখিত নির্দেশনা মেনে কোন শিক্ষার্থী eff পূরণে ব্যর্থ হলে আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ এর জন্য প্রতিষ্ঠান দায়ী থাকবে না।

  • (ক) প্রতিষ্ঠানসমূহ মাদ্রাসা শিক্ষা বাের্ডের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে পরীক্ষার নাম অপশন থেকে Alim, ধরণ (Type) অপশন থেকে e-FF Form fillup ও বছর অপশন থেকে 2021 সিলেক্ট করে Continue বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • তারপর মাদ্রাসার EIIN এ Password দিয়ে Login করে Probable list এ যেতে হবে এবং Print করে হার্ডকপিতে লালকালি ব্যবহার করে টিক (V) চিহ্ন দিয়ে পরীক্ষার্থী নির্ধারণ করতে হবে।
  • (খ) উক্ত হার্ডকপি Probable list এ টিক (V) চিহ্নিত পরীক্ষার্থীর তথ্য মিলিয়ে কম্পিউটারে প্রদর্শনিকৃত Probable list থেকে Select করতে হবে।
  • (গ) Temporary List Print করে ভালােভাবে যাচাই/বাছাই করে প্রয়ােজন হলে Select/UnSelect করা যাবে।
  • (ঘ) এর পর T T Slip Print করতে হবে। নিকটস্থ সােনালী ব্যাংকের যে কোনাে শাখায়  T T Slip এ উল্লিখিত পরিমাণ টাকা জমা প্রদান করতে হবে। উল্লেখ্য  TT Slip Print করলে আর কোন অবস্থাতেই Select /UnSelect করা যাবে।

বি.দ্র. দাখিল ও জেডিসি পরীক্ষায় যে Pass word ব্যবহার করা হয়েছে, সেই Pass Word দিয়েই Online -এ ফরম পূরণ করতে হবে।

আলিম ফরম ফিলাপ ফি ২০২১

সাধারণ, মুজাব্বিদ ও বিজ্ঞান বিভাগের নিয়মিত শিক্ষার্থীদের আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ ফি ২০২১ নিম্নে একসাথে ছক আকারে দেওয়া হয়েছে। এখানে একজন শিক্ষার্থীর নিজ প্রতিষ্ঠানের বেতন ব্যতীত শুধুমাত্র বোর্ড কর্তৃক নির্ধারিত ফরম পূরণের ফি এর হার দেওয়া হয়েছে। তবে অনিয়মিত, জিপিএ উন্নয়ন এবং প্রাইভেট শিক্ষার্থীদের জন্য কমবেশ আরও লাগবে।

বিবরণফির পরিমাণ
সাধারণ১০৭০/- টাকা + বেতন
মুজাব্বিদ১০৭০/- টাকা + বেতন
বিজ্ঞান১১৩০/- টাকা + বেতন

যারা আলিম পরীক্ষার ফরম ফিলাপ করতে পারবে ২০২১

২০২১ সালের আলিম পরীক্ষায় যারা যারা ফরম পূরণ করতে পারবে তা হচ্ছে ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের নিয়মিত ও ২০১৬-২০১৭, ২০১৭-২০১৮, ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের অনিয়মিত এবং (রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ থাকা সাপেক্ষে) জি, পি, এ উন্নয়ন বা Improvement পরীক্ষার্থী।

  • যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৮ অথবা ২০১৯ অথবা ২০২০ সালের আলিম পরীক্ষায় এক বা একাধিকবার অংশগ্রহণ করে অকৃতকার্য হয়েছে, রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ থাকলে তারা ২০২১ সালে অনুষ্ঠেয় আলিম পরীক্ষায় অবশিষ্ট অকৃতকার্য বিষয়/বিষয়সমূহে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।
  • আংশিক বিষয়ে অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীগণ কখনই চতুর্থ বিষয় পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না। তবে পরীক্ষার্থীগণ ইচ্ছা করলে এক/দুই বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করে ৪র্থ বিষয়সহ সকল বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।
  • যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৬ অথবা ২০১৭ অথবা ২০১৮ সালের আলিম পরীক্ষায় এক/দুই বিষয়ে অকৃতকার্য হয়ে ২০১৬ অথবা ২০১৭ অথবা ২০১৮ অথবা ২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষায় ঐ এক/দুই বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণকালে বহিষ্কৃত অথবা অভিযুক্ত হয়েছে এবং শৃংখলা কমিটির সিদ্ধান্ত মােতাবেক ২০১৭ , ২০১৮ , ২০১৯ সালের পরীক্ষা বাতিল হয়েছে, রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ থাকলে তারাও ২০২০ সালে সকল বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।
  • ২০১৬-২০১৭ সেশনের পূর্বের রেজিস্ট্রেশনধারী কোন পরীক্ষার্থী ২০২১ সালের আলিম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। তবে ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের রেজিস্ট্রেশনধারী পরীক্ষার্থীদের মধ্যে যারা ইতােমধ্যে আলিম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এক বিষয়ে (চতুর্থ বিষয় ব্যতীত) অকৃতকার্য হয়েছে তারা ফরম পূরণ (e-FF) এর পূর্বে ২৫০/- টাকা হারে রেজিস্ট্রেশন নবায়ন ফি বাের্ডে জমা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন নবায়ন পূর্বক ২০২০ সালে ঐ এক বিষয়ের (চতুর্থ বিষয় ব্যতীত) পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।
  • ২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষায় যে সকল অনিয়মিত এবং প্রাইভেট পরীক্ষার্থীদের মধ্যে যারা দুই বা ততােধিক বিষয়ে (চতুর্থ বিষয় বাদে) পরীক্ষা দিয়ে অকৃতকার্য হয়েছে এবং যাদের রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তারা কোন অবস্থাতেই রেজিষ্ট্রেশন নবায়ন করে ২০২০ সালের আলিম পরীক্ষায় একাধিক বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না।
  • যে সকল পরীক্ষার্থী ২০১৬, ২০১৭ ও ২০১৮ সালের আলিম পরীক্ষার যে কোন এক বা একাধিক বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এক বিষয়ে (চতুর্থ বিষয় ব্যতীত) পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়েছে এবং যে কোন কারনে তারা ২০১৭, ২০১৮ ও ২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেনি, অথচ তাদের ২০১৯ সালের রেজিষ্ট্রেশনের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তারাও ২৫০/- টাকা নবায়ন ফি বাের্ডে জমা দিয়ে শুধু একবারের জন্য রেজিস্ট্রেশন নবায়ন পূর্বক ২০২০ সালের আলিম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

বিঃ দ্রঃ- আংশিক বিষয়ের পরীক্ষার্থী হিসেবে কখনােই চতুর্থ বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা যাবে না এবং দুই বা ততােধিক বিষয়ে অকৃতকার্য থাকলে কখনােই রেজিস্ট্রেশন নবায়ন করা যাবে না। পরীক্ষাথার রেজিস্ট্রেশন নম্বর ও বিষয় সম্পর্কে চিত হয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সকল মাদ্রাসা প্রধানকে বিশেষভাবে অনুরােধ করা হলাে।

পরীক্ষা পরিচালনা সংক্রান্ত নীতিমালায় উল্লিখিত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন নং-শিম/শা-১০/৭ পরীক্ষা ২ গ্রেডিং)/২০০২/৬১০০; তারিখঃ ০৪/০১/২০০৩ এর ১ (ঞ) এ বর্ণিত নিয়ম মােতাবেক ২০২০ সালের আলিম পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীগণকে চতুর্থ বিষয়ের সুবিধা প্রদান করা হবে।

  • কেবল ২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষায় সকল বিষয়ে অংশগ্রহণ করে উত্তীর্ণ  হয়েছে এবং GPA ৫ .০০ এর কম পেয়েছে তারা ইচ্ছা করলে রেজিষ্ট্রেশনের মেয়াদ থাকা সাপেক্ষে ২০২০ সালের আলিম পরীক্ষায় GPA উন্নয়নের জন্য পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। তবে তাদেরকে সকল বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।
  • যে সকল পরীক্ষার্থী- ২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষায় ০১ বা ০২ বিষয়ের  পরীক্ষা দিয়ে আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে, তারা  কখনই ২০২০ সালের আলিম পরীক্ষায় জি, পি, এ উন্নয়ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না।
Previous articleকেন ৩০ নম্বর জার্সি পরে খেলবেন মেসি?
Next articleপ্রতিদিন ১০১০০ টাকা বোনাস টিকটক রেফার করে আয় করার উপায় ২০২১

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here