উপায় মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে বিস্তারিত ২০২১

105
উপায় মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে বিস্তারিত ২০২১
উপায় মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে বিস্তারিত ২০২১

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় ইউসিবি ব্যাংক

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং বাংলাদেশের ডিজিটাল লেনদেন ব্যবস্থাকে আরেক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে। ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ফাইন্যান্সিয়াল লেনদেন আরো ডিজালাইজড করার নিমিত্তে ২০২০ সালের মার্চ মাসে “উপায় মোবাইল ব্যাংকিং” সিস্টেম চালু করে। উপায় মোবাইল ব্যাংকিং চালু করার কিছু দিনের মধ্যে UCB ব্যাংক অত্যাধুনিক ফিচার্স সমৃদ্ধ “উপায় মোবাইল ব্যাংকিং app” লঞ্চ করে। ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক (UCB) এর সহকারী প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড ফিনটেক কোম্পানি লিমিটেড এর একটি অর্থনৈতিক সেবা এই উপায়। অর্থাৎ এটি মূলত ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক (UCB) এরই একটি সেবা। UCB পূর্বেও একটি সমগোত্রীয় সেবা তার গ্রাহকদের দিয়েছিলো। যার নাম ছিল ইউক্যাশ (UCash)। তবে বর্তমানে তাদের সেবা পেতে হলে ব্যবহার করতে হবে উপায়।

ডিজিটাল আর্থিক সেবায় এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা করতে যাচ্ছে উপায়। গ্রাহক চাহিদাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে, উৎকৃষ্ট গ্রাহক সেবা, নিরাপদ লেনদেন আর নিত্যনতুন উদ্ভাবন নিয়ে সর্বদা তদের পাশে থেকে কাজ করবে ‘উপায়’। ১৭ মার্চ থেকে শুরু দেশে চালু হয়েছে আরও একটি নতুন মোবাইল ব্যাংকিং সেবা উপায়। নতুন সব ব্লক চেইন নিরাপত্তা ফিচার যুক্ত করে উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস দিচ্ছে উপায়।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং এর যাত্রা

বর্তমান পৃথিবীতে শুধু নগদ টাকা থাকলেই আর আগের মতো সকল সুবিধা ভোগ করা যায় না। আধুনিক পৃথিবীর আধুনিক নিয়ম অনুযায়ী এখন অনেক কেনাকাটাই সহজে করতে চাইলে নির্ভর করতে হয় অনলাইন জগতের ওপর। আর দিনে দিনে অনলাইন জগতের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠছে এমএফএস তথা মোবাইল ব্যাংকিং সেবা গুলো। বাংলাদেশও তার ব্যাতিক্রম নয়। আর বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্যই চালু হয়েছে আরো একটি সম্পূর্ণ নতুন মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। উপায় মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস দিয়ে গ্রাহকরা মোবাইল রিচার্জ ক্যাশ আউট সেন্ড মানি বিল পেমেন্ট সহ গাড়ি কিসের জরিমানা ও দেওয়া যাবে, এছাড়াও উপায় ম্যানেজমেন্ট কর্তৃপক্ষ আরো বিভিন্ন আকর্ষণীয় ফিচার ভবিষ্যতে যুক্ত করবে।

নোটিশঃ ১ম বার অ্যাপ-এ লগ-ইন করলে ২৫ টাকা এবং ৭ দিনের মধ্যে অ্যাপ দিয়ে একবারে ৫০ টাকা (বা তার চেয়ে বেশি পরিমান) মোবাইল রিচার্জ করলে আরো ২৫ টাকা। বর্তমানে “উপায়” (upay) সেলফ রেজিস্ট্রেশন করলে 50 টাকা বোনাস পাওয়া যায়, উপায় মোবাইল ব্যাংকিং রেজিস্ট্রেশন করতে মোবাইল অ্যাপ দিয়ে কাজটি করতে হবে আপনি চাইলে খুব সহজেই গুগল প্লে স্টোর থেকে অথবা অ্যাপেল অ্যাপ স্টোর থেকে উপায় মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপ টি ডাউনলোড এবং ইন্সটল করে নিতে পারবেন।
উপায় মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে বিস্তারিত
উপায় মোবাইল ব্যাংকিং

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং কোড

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং এর মেনু কোড হলো *২৬৮#। উপায় মোবাইল ব্যাকিং কোড (Upay ussd code) ও হেল্পলাইন নাম্বার : উপায় মোবাইল ব্যাকিং ডায়াল কোড : *268#. উপায় মোবাইল ব্যাংকিং হেল্পলাইন : ১৬২৬৮। যে কোন মোবাইল থেকে এই ইউএসডি কোড ডায়াল করে উপায় একাউন্টের মাধ্যমে উপায় এর সকল সার্ভিস নেওয়া যাবে। তবে মোবাইল উপায় মোবাইল ব্যাংকিং App অরো অনেক ফিচার্স থাকায় এ্যাপ থেকে বাড়তি কিছু সুবিধা নিতে পারবেন।

ম্যানুকোড
উপায় ডায়াল কোড*২৬৮#
উপায় হেল্পলাইন১৬২৬৮
ইমেইল[email protected]
ক্যাশ আউট চার্জ১৪ টাকা
ওয়েবসাইটwww.upaybd.com

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং app

অত্যাধুনিক ফিচার্স সমৃদ্ধ উপায় মোবাইল ব্যাংকিং App টি আপনি গুগল প্লে-স্টোরে সম্পূর্ণ বিনা মূল্যে ডাউনলোড করতে পারবেন। উপায় মোবাইল ব্যাংকিং App ডাউনলোড করার জন্য আপনার মোবাইলের গুগল প্লে-স্টোরে গিয়ে “Upay” লিখে সার্চ করতে হবে।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলার নিয়ম

উপায় একাউন্ট খোলার নিয়ম পানির মতই সোজা ও ঝামেলাবিহীন। ঘরে বসে উপায় একাউন্ট খুলতে আপনার মোবাইল ফোন ও NID কার্ড সাথে রাখুন। কয়েকটি ধাপ ফলো করার মাধ্যমে উপায় মোবাইল ব্যাংকিং সেলফ রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়ে যাবে এবং এরপর থেকেই উপভোগ করতে পারবেন উপায় মোবাইল ব্যাংকিং এর দারুন দারুন সব সুবিধা। আর রিওয়ার্ড হিসেবে ৫০ টাকা বোনাস তো থাকছেই।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং সেলফ রেজিস্ট্রেশন করতে যা যা প্রয়োজন-

  • একটি সচল সিমকার্ড
  • স্মার্ট ফোন
  • বাংলাদেশ ন্যাশনাল আইডি কার্ড (NID)
  • নিজের ছবি (সেলফি)

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং রেজিস্ট্রেশন এবং বিস্তারিত

  • একজন গ্রাহক এর এন আইডি অথবা স্মার্ট কার্ড দিয়ে শুধুমাত্র একটি পারসনাল উপায় একাউন্ট খোলা যাবে তবে কেউ যদি এজেন্ট নিতে চায় সেক্ষেত্রে আরো একটি নিতে পারবে।
  • একাউন্ট খোলার জন্য নিকটস্থ এজেন্ট পয়েন্টে চলে যান অথবা নিজে নিজেই মোবাইল অ্যাপ দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন।
  • “উপায়” (upay) হেল্প লাইন নাম্বার_ 16268
উপায় মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলার নিয়ম
উপায় মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলার নিয়ম
  1. প্রথমে উপায় Appটি  Google Play Store থেকে Download করে ইনস্টল করে ফেলুন। যদি আগে থেকে Install করা থাকে তাহলে এই ধাপটি Skip করুন।
  2. উপায় অ্যাপ Open করে রেজিস্ট্রেশন ও লগইন অপশন দেখতে পাবেন।  আপনি অবশ্যই রেজিস্ট্রেশন বাটনে ক্লিক করুন।
  3. মোবাইল উপায় একাউন্ট এ আপনার যে মোবাইল নম্বরটি ব্যবহার করতে চান সেটি প্রদান করুন।  আপনার মোবাইল অপারেটর সিলেক্ট করুন।
  4. এরপর Verify মোবাইল নাম্বার অপশনে ক্লিক করে নম্বরটি ভেরিফাই করে নিন।  Verify  অপশনেClick  করার পর আপনার মোবাইল নাম্বারে একটি ওটিপি কোড (OTP Code) আসবে। এটি সয়ংক্রিয়ভাবে ভেরিফাই করে নিবে।
  5. এরপর আপনার জাতীয় ভোটার আইডি কার্ডের এর Front Side  এবং Back Side এর  ছবি তুলে সাবমিট করুন।
  6. তারপর আপনার তথ্য ভেরিফাই করা হবে। ভেরিফাই সম্পন্ন  যাওয়ার পর আপনার Personal Details প্রদান করতে হবে।  যেমনল পেশা, ঠিকানা ও অন্যান্য।  এসব তথ্য নির্ভুলভাবে প্রদান করুন।  চাইলে আপনি তথ্যগুলি পরে এডিট করতে পারবেন।
  7. তথ্য প্রদান হয়ে গেলে আপনার উপায় একাউন্ট এর তারপর একটি পিন কোড সেট করুন।
পড়তে পারেন:- বিকাশ থেকে লোন সর্বোচ্চ ১০,০০০ টাকা

সবকিছু ঠিক থাকলে উপায় থেকে আপনাকে অভিনন্দন জানানো হবে । উপায় থেকে একটি নিশ্চিতকরণ এসএমএস পাবেন।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং ক্যাশ আউট চার্জ

উপায় ব্যবহারকারী গ্রাহকরা ট্যাক্স-ভ্যাটসহ প্রতি হাজারে ১৪ টাকায় ক্যাশ আউট করতে পারবেন, যা বাজারে প্রচলিত মোবাইল ব্যাংকিং সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের তুলনায় সর্বনিম্ন। একজন গ্রাহক *২৬৮# ডায়াল করে যে কোন এজেন্ট পয়েন্ট থেকে ক্যাশ আউট করতে পারবেন। তাছাড়া দেশজুড়ে ৫০০ এর বেশি UCB এটিএম এ “উপায়” অ্যাপ থেকে মাত্র ৮ টাকায় ক্যাশ আউট করা যাবে। এছাড়াও উপায় সেন্ড মানি একদম ফ্রি।

এখন উপায় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা গ্রাহকদের দিচ্ছে দেশের সর্বনিন্ম এটিএম ক্যাশ আউট চার্জ এটিএম ব্যবহারে। এখন প্রতি হাজারে মাত্র ৮ টাকা খরচে আপনি ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের এটিএম বুথ গুলি থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।এক্ষেত্রে আপনি উপায় ইউএসএসডি কোড অথবা এটিএম থেকে ক্যাশ আউট করতে আপনার প্রতি হাজারে খরচ হবে ৮ টাকা। 

উপায় গ্রাহকরা ইউসিবিএলের এটিএম ব্যাবহার করে হাজারে মাত্র ৮ টাকায় ক্যাশ আউট করতে পারছেন। এটিও বাজারে সর্বনিম্ন রেট। উপায় অ্যাপ ব্যবহারকারীরাও হাজারে ১৪ টাকা খরচ করে ক্যশ আউট করতে পারবেন। গুগল প্লে-স্টোর হতে উপায় অ্যাপ ডাউনলোড করা যাবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম মেনে গ্রাহকরা কোনো ধরনের চার্জ ছাড়াই এক একাউন্ট থেকে অন্য একাউন্টে যেকোনো পরিমাণে টাকা লেনদেন করতে পারবেন। উপায় এর মাধ্যমে মোবাইলে টাকা লেনদেন, ইউটিলিটি বিল পেমেন্ট, কেনাকাটার মুল্য পরিশোধ, রেমিট্যান্স গ্রহণ, বেতন প্রদান, এয়ারটাইম ক্রয় করা যাবে।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট হওয়ার নিয়ম

বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় উপায় মোবাইল ব্যাংকিং এর প্রতিনিধি রয়েছে। তাদের সাথে যোগাযোগ করে আপনি উপায় এর একজন এজেন্ট হতে পারবেন। আপনি যদি জেলা শহরে বাস করেন তাহলে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকে সরাসরি কথা বলেও উপায় এর এজেন্ট হতে পারবেন।

১. উপায় এজেন্ট পেতে সাজানো গোছানো একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা দোকান থাকা লাগবে।
২. দোকানের ট্রেড লাইসেন্স লাগবে।
৩.নিজের নামে রেজিষ্ট্রেশন করা একটি সিম ও এন আই ডি কার্ড লাগবে।
৪.পাসপোর্ট সাইজের ছবি একটি ছবি প্রয়োজন হবে।
৫. আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসা অবস্থায় একটি ছবি লাগবে।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং
উপায় মোবাইল ব্যাংকিং

আপনাকে যদি কেউ বলে উপায় এজেন্ট অললাইনে করে দেবে এটা প্রতারণা ছাড়া কিছু নয় কারণ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছাড়া আপনাকে কিভাবে উপায় মোবাইল ব্যাকিং এজেন্ট নিয়ে দেবে। আপনারা কারও ফাদে পা দিবেন না। বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় একজন করে উপায় মোবাইল ব্যাকিং সেবার প্রতিনিধি আছে । উপায় প্রতিনিধির নাম্বার সংগ্রহ করে ফোন দিলেই চলে আসবে।

উপায় প্রতিনিধির নাম্বার কোথায় পাবো :

আপনার আশেপাশের যেকোনো উপায়ে এজেন্ট এর দোকানে গিয়ে বলবেন আমাদের জেলার উপায় প্রতিনিধির নাম্বারটি দিন । উপায় প্রতিনিধির নাম্বার অথবা জেলা ডিস্ট্রিবিউটর সারের নম্বর সকল এজেন্টর ফাইলে লিখা আছে। এছাড়া এভাবে উপায় প্রতিনিধির নাম্বার অথবা জেলা ডিস্ট্রিবিউটর সারের নম্বর যদি সংগ্রহ করতে না পারেন তাহলে উপায় ফেইসবুক পেইজে বা হট লাইনে কল দিয়ে জানতে পারবেন।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টদের কমিশন বা লাভ কত?

প্রতি ক্যাশ ইন বা ক্যাশ আউট এ প্রতি হাজারে ৪টাকা১০ পয়সা। অথাৎ কাস্টমারকে টাকা পাঠালে প্রতি হাজারে ৪.১০ টাকা এবং কাস্টমার ক্যাশ আউট বা আপনার কাছ থেকে টাকা উঠালে প্রতি হাজারে ৪.১০ টাকা পাবেন। প্রতি লাখে ৪১০ টাকা পাবেন।  টাকা সাথে সাথে আপনার এজেন্ট একাউন্টে যোগ হয়ে যাবে। কাস্টমার এর এ সকল টাকা আপনি বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটর অফিস এর কর্মকর্তা ডিএসও এর কাছ থেকে তুলতে হবে। এতে কোন প্রকার চার্জ নেই। এ ছাড়া যাদের কাস্টমার একাউন্ট খুলে দিলে একটা এমাউন্ট আপনার একাউন্টে যোগ হয়ে যাবে। তবে বিভিন্ন সময়ে এর থেকে বেশি হতে পারে।

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে জিজ্ঞাসা

উপায় একাউন্ট খুলতে আপনার কোন সমস্যা হলে কিংবা উপায় মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টের মাধ্যমে আপনার সমস্যা জানাতে পারেন। মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসায় খুব সতর্কতা অবলম্বন করুন সফলতা আসবেই। তথ্যগুলো আপনার প্রয়োজনীয় মনে হলে ফেসবুক টাইমলাইনে শেয়ার করে রাখতে পারেন।

Previous articleব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনার মধ্যে কে এগিয়ে
Next articleজীবন অনিশ্চিত তবুও সফল উদ্যোক্তা আরনিকা আল-আমিন

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here