গার্মেন্টস চাকরি করতে যারা ইচ্ছুক

গার্মেন্টস চাকরি

গার্মেন্টস চাকরি করতে হলে আপনাকে নির্দিষ্ট কোন বিষয়ে ভালো জ্ঞান থাকতে হবে। তা নাহলে গার্মেন্টস চাকরি আপনার জন্য খুব বেশি সফলতা নিয়ে আসতে পারবেনা। বর্তমান পোশাক শিল্পে (2019-20) আমাদের দেশ দ্বিতীয়।

কিন্তু দিন দিন আমাদের দেশে বেকারত্বের হার বেড়েই চলেছে। অনেকে পড়াশোনা শেষ করে চাকরির পেছনে ঘুরেও পাচ্ছে না চাকরি। তাই বেশিরভাগ শিক্ষিত তরুন-তরুনিও বেছে নিচ্ছেন গার্মেন্টস চাকরি। তাই আপনিও সহজেই এই পোশাক শিল্পতে চাকরি করে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে পারেন।

গার্মেন্টস চাকরি

অন্যান্য চাকরির ন্যায় গার্মেন্টস চাকরির ক্ষেত্রেও বিভিন্ন পদ রয়েছে। আবার বিভিন্ন পদ ভেদে তাদের বেতন ভাতার ধরনও আলাদা হয়ে থাকে। গার্মেন্টসের বিভিন্ন সেকশনে বিভিন্ন ধরনের কাজ করা হয়। নিম্নে গার্সেন্টসের কোন সেকশনে কি কাজ করা হয় তার বর্ণনা করা হল।

   গার্মেন্টস চাকরি

গার্মেন্টস চাকরি কিছু সুবিধা সমূহ

অন্যান্য চাকরির ন্যায় গার্মেন্টস চাকরির ক্ষেত্রেও বিভিন্ন পদ রয়েছে। আবার বিভিন্ন পদ ভেদে তাদের বেতন ভাতার ধরনও আলাদা হয়ে থাকে। নিচের লেখাগুলো একটু মনোযোগ দিয়ে পড়লেই গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন!

  1. সহজেই গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি জয়েন করা যায়।
  2. গার্মেন্টস চাকরিতে কোনো প্রকার ঘুষ দিতে হয় না।
  3. গার্মেন্টসের চাকরি বেশির ভাগ পদে অভিজ্ঞতা লাগে না।
  4. গার্মেন্টস চাকরিতে দ্রুত পদোন্নতি ঘটে।
  5. গার্মেন্টসের চাকরিতে ওভার টাইম এর মাধ্যমে বেশি বেতন লাভের সুযোগ রয়েছে।
  6. গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি শিক্ষাগত যোগ্যতা খুব একটা বড় বিষয় নয়।
  7. সরকারি চাকরির মতো গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি উৎসব ভাতা রয়েছে। দুই ঈদে ঈদ বোনাস হিসেবে দেয়া হয়।
  8. কোন কোন গার্মেন্টসে মধ্যহ্নভোজের ব্যবস্থা রয়েছে।
  9. পরিবহন সুবিধাও রয়েছে।
  10. গার্মেন্টস চাকরিতে হাজিরা বা উপস্থিত বোনাস রয়েছে। যা বাড়তি বেতনের নিশ্চয়তা দেয়।
  11. গার্মেন্টসে পরিচ্ছন্ন ও নিরাপদ পরিবেশে কাজের সুযোগ রয়েছে।
  12. ফায়ার ড্রিল সহ কর্মীদের বিভিন্ন নিরাপত্তা প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

   গার্মেন্টস চাকরি বই

অপারেটরের কাজ কি?

মেশিন চালানোর দক্ষতা এবং কোন মেশিনে কোন ধরনের সেলাই হয়। সে বিষয়ে জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। কাজের নমুনা অনুযায়ী সেই কাজ করতে হয়। সর্বদা নিখুঁতভাবে কাজ করা উচিত।

কোন মেশিনে কোন নিডেল ব্যবহার করা হয় এবং নিডেল লাগানো ও সুতা ভরা বিশেষ করে ওভার লক মেশিনের সুতা ভরা সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে। একজন নতুন অপারেটরের বেতন বর্তমানে ৮ হাজার ৫০০ টাকা থেকে শুরু হয় এবং সর্বোচ্চ ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

সুপারভাইজারের কাজ কি?

সুপারভাইজারকে প্রতিটি মেশিন চালোনোর দক্ষতা থাকতে হয়। পোশাকের প্রত্যেক অংশের নাম জানতে হয় এবং প্রত্যেক অংশ সেলাই করে পরিপূর্ণ একটি পোশাক তৈরি করার অভিজ্ঞতা থাকতে হয়। আর কাজ পরিচালনা করা এবং Style অনুযায়ী Lay Out করার বিশেষ জ্ঞান থাকা একান্ত প্রয়োজন। তবে মেশিন সমন্ধে জ্ঞান থাকা দরকার।

গার্মেন্টস চাকরি চাই
গার্মেন্টস চাকরি

কোয়ালিটি ইন্সপেক্টরের কাজ কি?

কোয়ালিটি শব্দের অর্থ মান উন্নয়ন এবং ইন্সপেক্টর শব্দের অর্থ পরিদর্শক। কোন জিনিসের গুণাগুণ যাচাইকারীকে কোয়ালিটি ইন্সপেক্টর বলে।

প্রতিটি পোশাকের বিভিন্ন অংশের নাম এবং সেলাই ও মেজারমেন্ট সঠিক কিনা, স্টাইল অনুযায়ী পোশাক তৈরি হওয়ার সময় লাইনে প্রত্যেক মেশিনের কাজ গুরুত্ব সহকারে দেখা এবং কোন কাজে বেশি অলটার হতে পারে এই সব বিষয়ে বাস্তব জ্ঞান থাকতে হবে। এছাড়াও সেডিং ও সেলাই সমন্ধে বিশেষ জ্ঞান থাকতে হবে।

কোয়ালিটি কন্ট্রোলারের কাজ কি?

কোয়ালিটি কন্ট্রোলার অর্থ পোশাকের মান নিয়ন্ত্রণকারী। পোশাকের বিভিন্ন অংশের নাম থেকে শুরু করে অর্ডার সিট, ডিজাইন সিট ও স্যাম্পল অনুযায়ী মান ঠিক কিনা যাচাই করা।
বায়ারের (Buyer) সাথে কথা বলার দক্ষতা থাকতে হবে এবং তাদের নির্দেশ মনোযোগ সহকারে শোনে ও নির্দেশ পালন করা উচিত। রেশিও ও অ্যাসোর্টম্যান সমন্ধে জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। প্রতিদিন কাটিং থেকে শুরু করে ফিনিশিং পর্যন্ত প্রতিটি কাজের হিসাব তদারকি করা দরকার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button