পর্নোগ্রাফি ও ব্ল্যাকমেইলের অভিযোগে পরীমনির বাসায় র‌্যাবের অভিযান

রাজধানীর বনানীতে চিত্রনায়িকা পরীমনির বাসায় অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। আজ বুধবার বিকেল চারটার কিছু সময় পর র‌্যাব এই অভিযান শুরু করে।

র‌্যাব সূত্র জানায়, সম্প্রতি হেলেনা জাহাঙ্গীর, ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌকে গ্রেপ্তারের ঘটনার ধারাবাহিকতায় চিত্রনায়িকা পরীমনির বাসায় এ অভিযান চলছে।

নায়িকা পরীমনি ও তার পরিচিত কয়েকজনের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি ও ব্ল্যাকমেইলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই এ অভিযান। তবে পরীমনির বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক কিছু জানায়নি র‌্যাব।

রাজধানীর বনানীতে চিত্রনায়িকা পরীমনির বাসায় এখনো অভিযান চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আজ বুধবার বিকেল চারটার কিছু সময় পর র‌্যাব এই অভিযান শুরু করে। র‌্যাব সূত্র জানায়, সম্প্রতি হেলেনা জাহাঙ্গীর, ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌকে গ্রেফতারের ঘটনার ধারাবাহিকতায় চিত্রনায়িকা পরীমনির বাসায় এ অভিযান চলছে। ‘সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের’ ভিত্তিতে এ অভিযান চালানো হচ্ছে।

অভিযানে র‌্যাবের প্রতিনিধি দল পরীমনির বাসায় গিয়ে দরজা খুলতে বললে- তিনি তাদের পরিচয় জানতে চান। এমনকি কোন থানা থেকে তারা এসেছেন তা জিজ্ঞেস করেন। পরে নিজের নিরাপত্তার স্বার্থে ফেসবুক লাইভে এসে মিডিয়া ও সহযোগিদের সহযোগিতা কামনা করেন।

ফেসবুক লাইভে পরীমনি বলেন, আমার বাসার দরজায় অপরিচিত লোকজন এসেছেন। কিন্তু তারা কোন থানা থেকে এসেছেন জিজ্ঞেস করি। কিন্তু তারা পুলিশ পরিচয় দিচ্ছেন, তবে কোন থানা থেকে তারা এসেছেন সেটি বলছে না। শুধু দরজা খুলতে বলছেন তারা।

তিনি বলেন, এখন নিজের ঘর নিজের কাছেই জেলখানা মনে হচ্ছে। সব জল্পনা-কল্পনা শেষে পরীমনি ঘরের দরজা খুলে দেখেন র‌্যাবের একটি দল এসেছেন।

পরীমনি দীর্ঘদিন ধরে আলোচনায় রয়েছেন। কিছুদিন আগে ঢাকার সাভারের বোটক্লাবে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন অভিযোগ করে আলোচনায় আসেন তিনি। সে ঘটনায় কয়েকজন গ্রেফতারও হয়েছিলেন, তারা আবার জামিনও পেয়েছেন। এর মধ্যেই আবার একাধিক ক্লাবে পরীমনির ভাঙচুরের অভিযোগ করেন সংশ্লিষ্টরা।

সম্প্রতি রাজধানী থেকে পিয়াসা ও মৌ নামে দুই মডেল গ্রেফতার হয়েছেন। তাদের বাসায় বিপুল মদ ও ইয়াবা পাওয়া গেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

17 − 5 =

Back to top button