প্রতিবেদন লেখার নিয়ম

প্রতিবেদন কথাটির সাথে আমরা অনেকেই অনেক ভাবে পরিচিত। প্রতিবেদন লেখার নিয়ম আমাদের জীবনের শুরু থেকে কর্ম জীবন, সর্ব ক্ষেত্রেই প্রয়োজন হয়। তাই আপনাদের সুবিধার্থে  এই লেখাতে প্রতিবেদন লেখার নিয়ম ও কিভাবে মানসম্মত একটি প্রতিবদেন লিখবেন তা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বর্ণনা করবো।

প্রতিবেদন কি?

কোন নির্দিষ্ট বিষয় সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্যানুসন্ধান করে কোন বিবরনীকেই প্রতিবেদন বলে। অর্থাৎ, কোন ঘটনা, তথ্য বা বক্তব্য সম্পকে সুচিন্তিত বক্তব্য প্রদানই প্রতিবেদন। প্রতিবেদন রচনাকারীকে বলা হয় প্রতিবেদক। প্রতিবেদকের কাজ হল কোন বিষয়ের তথ্য, সিদ্ধান্ত, ফলাফল ইত্যাদি খুঁটিনাটি অনুসন্ধানের পর বিবরণী তৈরি করে কোন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা কোন কতৃপক্ষের বিবেচনার জন্য পেশ করা।

প্রতিবেদনের প্রয়োজনীয়তা

প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনায়, ব্যবসা -বানিজ্য, আইন আদালতের অন্যান্য ক্ষেত্রে প্রতিবেদনের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। পূর্বে শুধুমাত্র পত্রিকায় প্রকাশিত বিবরণীকেই আমরা প্রতিবেদন হিসেবে অভিহিত করতাম। কিন্তু বর্তমানে একজন পেশাগত সাংবাদিক বা প্রতিবেদক ছাড়াও সাধারণ মানুষের জন্য প্রতিবেদনের প্রয়োজনীয়তা বেড়েছে।

প্রতিবেদন তার লিখার মাধ্যমে নিজস্ব চিন্তাধারা তুলে ধরতে পারে। কোন বিষয় নিয়েও বিষদভাবে আলোচনা করতে পারে, মুক্তভাবে মতামত ও প্রকাশ করতে পারে। একজন মানুষ প্রতিবেদনের মাধ্যমে কোন বিষয়ে পরিকল্পনা গ্রহন, সংগঠন, নির্দেশনা, নিয়ন্ত্রণ, ফলাফল নিরূপণ, সমন্বয় সাধন ইত্যাদি লাজে ব্যবহার করতে পারে।

সফল প্রতিবেদন লেখার নিয়ম

প্রতিবেদন লেখার জন্য সুনির্দিষ্ট কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে হয়। প্রতিবেদন লেখার জন্য রয়েছে নির্দিষ্ট নিয়ম। যে ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রতিবেদন লেখা হবে সেই ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত বক্তব্য যুক্তিসহকারে লিখতে হবে। প্রতিবেদন লেখার নিয়ম সবচেয়ে যে বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ তা হল, প্রতিবেদনটি নিরপেক্ষ অবস্থান থেকে লিখতে হবে।

যেখানে প্রতিবেদকের নিজস্ব আবেগ-অনুভূতির কোনো স্থান থাকবে না। ঘটনাটি যেভাবে ঘটেছে ঠিক সেভাবে উপস্থাপন করাই একটি মানসম্পন্ন প্রতিবেদনের বৈশিষ্ট্য। প্রতিবেদনে সঠিক তথ্য উপস্থাপন করেও মাঝেমাঝে জনপ্রিয়তা বা সফলতা পায় না। সঠিক কাঠামো অনুসরণ না করলে সফল হওয়া যায়।

নির্দিষ্ট ব্যাক্তিকে উদ্দেশ্য করে রচিত প্রতিবেদন, তার মন জয় করতে না পারলে, তাকে সফল প্রতিবেদন বলা যায় না। এছাড়া কাঠামোগত ভুলের কারনেও অনেকসময় প্রতিবেদনকে ব্যার্থ হিসেবে ধরা হয়। সফল প্রতিবেদন রচনার ক্ষেত্রে কিছু বিষয়ের উপর বিশেষ নজর দিতে হবে।

  1. আকর্ষণীয় শিরোনাম
  2. সহজ ভাষা প্রয়োগ
  3. যথাসম্ভব বাক্য সংক্ষেপণ
  4. অনুমান করে না লিখা
  5. প্রতিটা তথ্যের জন্য আলাদা প্যারাগ্রাফ ব্যবহার
  6. নির্দিষ্ট বিষয়ের বর্ণনা
  7. নিরপেক্ষ তথ্য প্রদান

সংবাদপত্রে প্রকাশের জন্য প্রতিবেদন লেখার নিয়ম

সংবাদ প্রতিবেদন প্রাতিষ্ঠানিক প্রতিবেদন থেকে পুরোপুরি ভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। সংবাদপত্রের প্রতিবেদনের জন্য একটি সুন্দর শিরোনাম দরকার হয়। শিরোনামটি খুবই গুরুত্ব বহন করে। খবরের মূল কথাটি শিরোনামের মাধ্যমেই প্রকাশ পায়।

   প্রতিবেদন লেখার নিয়ম নমুনা pdf

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম
প্রতিবেদন লেখার নিয়ম

সহজ কৌশলে প্রতিবেদন লেখার নিয়ম

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম এর সবচে সহজ হলো নিজেকে প্রশ্ন করা। যে প্রশ্ন গুলো আপনার প্রতিবেদনেরর ভিত গড়ে দিবে। তাই এই প্রশ্নগুলো  টুকে নিয়ে সেগুলোর উত্তর বের করা বা মাথায় রাখা উচিত। কারণ  প্রতিবেদন রচনার ক্ষেত্রে এ ধরনের প্রশ্ন অনেক উপকারে আসে,

১। আপনি কি কারো নির্দেশে প্রতিবেদন লিখছেন? কী ধরনের প্রতিবেদন লিখছেন? যিনি আপনাকে সমস্যা খতিয়ে দেখতে বলেছেন তিনি কে? তিনি কখন, কেন, এ দায়িত্ব দিয়েছেন?

২। সুনির্দিষ্টভাবে কোন বিষয়ে প্রতিবেদন লিখতে হবে? সেটা কী?

৩। কীভাবে অনুসন্ধান, তদন্ত বা তথ্য সংগ্রহ করতে হবে?(কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা, সাধারণ মানুষের কাছ থেকে সাক্ষাৎকার গ্রহণ, ঘটনাস্থল পরিদর্শন, পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পাদন, প্রয়োজনীয় পঠন-পাঠন ইত্যাদি) সে বিষয়গুলো কী কী?

৪। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে  সুনির্দিষ্ট ফলাফল বা সুপারিশ কী কী?

এই সব প্রশ্নের উত্তর দিয়ে কিছু খসড়া করে ফেলতে হবে। এই খসড়াগুলো থেকে চূড়ান্ত ভাবে প্রতিবেদন তৈরি করার আগে সেগুলোকে সাজিয়ে নিতে হবে। এবং সেখান থেকে দরকারী ও সামঞ্জস্যপূ্রণ তথ্যগুলো দিয়ে প্রতিবেদন সাজাতে হবে।

সহজে প্রতিবেদন লেখার নিয়ম শেখার জন্য চর্চার কোনো বিকল্প নেই। শুদ্ধ ভাষার ব্যবহার ও নির্দিষ্ট ফরম্যাট অনুসরণ করে সহজেই প্রতিবেদন লেখা যায়। এই লেখায় প্রদত্ত সকল প্রতিবেদন লেখার নিয়ম ও নমুনায় উল্লেখ করা বিষয়গুলোর প্রতি লক্ষ্য রেখে প্রতিবেদন রচিত হলে আপনার প্রতিবেদনটি সকলের নিকট প্রশংসিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button