ফাস্ট ফুড কি ? বিভিন্ন ধরনের ফাস্টফুড খাবারের নাম

ফাস্ট ফুড কি

ফাস্ট ফুড খাবার আমরা সকলেই কম বেশি খেয়ে থাকি। কিন্তু ফাস্টফুড খাবার বলতে প্রকৃতপক্ষে কি বোঝায় এবং জাঙ্ক ফুড ক্ষতিকর কেন এই সম্পর্কে অনেক ব্যাক্তিই জানেন না।

এইজন্য আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা ফাস্ট ফুড বা ঝটপট খাবার নিয়ে কথা বলবো। যেখান থেকে আপনি ফাস্ট ফুড কি বা কাকে বলে, ফাস্টফুড এর ক্ষতিকর দিক, ফাস্ট ফুড খাবার কি কি এই সম্পর্কে জানতে পারবেন।

ফাস্ট ফুড কি?

যে খাবার দ্রুত তৈরি ও পরিবেশন করা যায় তাই ফাস্টফুড। কয়েকটি সুপরিচিত ফাস্টফুড হলো: বার্গার, পিজা, স্যান্ডউইচ, হট ডগ, নুডলস ইত্যাদি। ফাস্ট ফুড মানে হলো দ্রুত খাবার। অর্থাৎ যে সকল খাবার খুব তাড়াতাড়ি তৈরি করা হয়, সেগুলিকেই ফাস্টফুড বলে।

ফাস্ট ফুড বা ঝটপট খাবার যেটা দ্রুত খাওয়ার জন্য তৈরি করা যায়, তাকে আমরা ফাস্টফুড বলি। ফাস্টফুড বানাতে সময়ও কম লাগে এবং এটা খেতেও সুস্বাদু। ফাস্টফুড তৈরি করতে সময় খুব কম লাগে। এবং এই সকল খাবারের চাহিদাও খুব বেশি। এই জন্য ছোট বড় সব শহরেই, ফাস্টফুড খাবারের ছোট বড় রেস্টুরেন্ট রয়েছে।

ফাস্ট ফুড
ফাস্ট ফুড

বিভিন্ন ধরনের ফাস্টফুড খাবারের নাম

ফাস্ট ফুড খাবার মানুষ অনেক পছন্দ করে। ফাস্টফুড খায় না এমন লোক কমই আছে কারণ আজকাল এই ব্যস্ত জীবনে মানুষের হতে সময় খুবই কম এবং যে সকল ব্যাক্তি রান্নায় সময় দিতে চায় না, তারা অনেক সময় ফাস্টফুড খেয়ে নেয়।

ভেলপুরি, চাউমিন, মোগলাই, এগরোল, সিঙ্গারা, বার্গার, স্যান্ডউইচ ইত্যাদি খাবারগুলি ফাস্টফুড এর উদাহরণ। এখানে কিছু জনপ্রিয় ফাস্টফুড খাবারের নাম দেওয়া হলো। যেগুলি কম বেশি সকলেই খেয়ে থাকেন।

  • ফ্রেঞ্চ ফ্রাই
  • চিকেন স্যান্ডউইচ
  • বার্গার
  • ক্লাসিক স্ম্যাশ
  • পিজ্জা
  • হার্দির বিস্কুট
  • ডানকিন কফি
  • স্লাইডার
  • চেরি লাইমেড
  • পোপেইস বিস্কুট
  • পকোড়া
  • এগরোল
  • ম্যাগি
  • পাস্তা
  • পাও ভাজি
  • মঞ্চুরিয়ান

ফাস্টফুড এর উপকারী দিক

বার্গার, ক্সিসপস (মচমচে ভাজা খাবার), পিঠা ও বিস্কুটে প্রাণিজ চর্বি উচ্চমাত্রায় থাকে। মিষ্টি, কোলা ও লেমনের মতো গ্যাসীয় বুদবুদযুক্ত পানীয় চিনির দিক দিয়ে উচ্চমাত্রার। আমরা যখন অধিক পরিমাণে চর্বি জাতীয় খাবার খাই, তখন আমাদের দেহ এগুলোকে চর্বিকলায় রূপান্তরিত করে এবং অধিক পরিমাণে চিনি আমাদের দাঁত ও ত্বককে নষ্ট করে দিতে পারে।

ফাস্ট ফুড কখনো সুষম খাদ্যের মধ্যে পড়ে না। ফাস্ট ফুডে আমাদের জন্য দরকারি ভিটামিন ও খনিজ পদার্থের অভাব রয়েছে। ফাস্ট ফুড খাওয়ার কারণে উঠতি বয়সের ছেলেমেয়েদের দেহ অসুস্থ হয়ে পড়ে। প্যাকেট বা কৌটাজাত খাবারের চেয়েও প্রাকৃতিক সজীব খাবার স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

ফাস্টফুড এর ক্ষতিকর দিক

ময়দা থেকে ফাস্টফুড তৈরি করা হয়, এবং ময়দাতে উচ্চ কোলেস্টেরল থাকে। এবং ফাস্টফুড তৈরিতে প্রচুর পরিমাণে তেলও ব্যবহার করা হয়। এই দুটি জিনিসই আমাদের শরীরের খুব খারাপ ক্ষতি করে থাকে।

কারণ এই ধরনের খাবার আমাদের শরীরে প্রবেশ করলে তা সঠিকভাবে হজম হয় না। এই খাবার গুলি, পাকস্থলীতে নিজেই পচন শুরু করে, এবং পরবর্তীকালে যা শরীরকে মারাত্মক রোগে আক্রান্ত করে তোলে।

আরও পড়ুনঃ-

যদি আপনি খুব অল্প পরিমাণে ফাস্টফুড জাতীয় খাবার খান তাহলে তেমন ক্ষতি নেই। তবে অত্যধিক পরিমাণে ফাস্টফুড জাতীয় খাবার গ্রহণ করলে এইসকল রোগ গুলি দেখা দিতে পারে।

  1. উচ্চ রক্তচাপের সৃষ্টি হয়
  2. স্থূলতা হাঁপানি এবং শ্বাসকষ্ট সহ শ্বাসকষ্টের সমস্যাগুলির ঝুঁকি বাড়ায়
  3. হৃদপিন্ড এবং ফুসফুসে চাপ সৃষ্টি করতে পারে
  4. সামান্য পরিশ্রম করলেও শ্বাস নিতে অসুবিধা হতে পারে
  5. শরীরের হরমোন গুলির কাজের ওপর বাঁধা দিতে পারে
  6. বিভিন্ন ত্বকের সমস্যা দেখা দেয়
  7. হাড়ের সমস্যা হয়

ফাস্টফুড নিয়ে শেষকথা 

ফাস্ট ফুডে অধিক পরিমানে কার্বোহাইড্রেড বা শর্করা এবং চর্বি থাকে। এই কারণেই দেহে নানারকমের সমস্যা দেখা দেয়। আশা করছি উপরের তথ্য থেকে আপনি ফাস্টফুড কি বা কাকে বলে, ফাস্ট ফুড খাবার কি কি এবং ফাস্টফুড জাতীয় খাবার খেলে কি কি ক্ষতি হয় – এই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে গেছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button